রাশেদ সোহরাওয়ার্দী না ফেরার দেশে।

পোস্ট করা হয়েছে 09/02/2019-06:13pm:    গণতন্ত্রের মানষপুত্র-খ্যাত উপমহাদেশের প্রখ্যাত রাজনৈতিক নেতা, রাজনীতিবিদ হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর ছেলে রাশেদ সোহরাওয়ার্দী না ফেরার দেশে। তিনি বৃহস্পতিবার রাতে লন্ডনে নিজ বাসায় ঘুমের মধ্যে ইন্তেকাল করেন। গতকাল শুক্রবার তার আকস্মিক মৃত্যুর খবর প্রকাশ পায়। গত রবিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) অক্সফোর্ড ইউনিয়নে ‘আল জাজিরা : হেড টু হেড’ অনুষ্ঠান রেকর্ডকালে দর্শকসারিতে শেষবার তার উপস্থিতি লক্ষ করা যায়। মরহুমের বন্ধু যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান শরীফ রাশেদ সোহরাওয়ার্দীর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন। সুলতান শরীফ জানান, গত ৩ ফেব্রুয়ারি আল জাজিরার অনুষ্ঠানে দীর্ঘ কয়েক ঘণ্টা তার সঙ্গে আড্ডা দিয়েছি। হঠাৎ করে তার মৃত্যুর খবর স্তম্ভিত করে দিয়েছে। সুলতান শরীফ আরও বলেন, মরহুমের পরিবার ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে যোগাযোগ রাখা হচ্ছে। সব তথ্য জানার পর সবাইকে বিস্তারিত জানানো হবে। রাশেদ সোহরাওয়ার্দী রাজনীতিতে না থাকলেও বাংলাদেশের উচ্চপর্যায়ের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সঙ্গে সম্পর্কিত ছিলেন। উল্লেখ্য, রাশেদ সোহরাওয়ার্দী রবার্ট অ্যাশবী নামে খ্যাতিমান ব্রিটিশ লেখক ও অভিনেতা হিসেবে সবার কাছে শ্রদ্ধার পাত্র ছিলেন। এই খ্যাতিমান ব্রিটিশ অভিনেতা লিজেন্ড (২০১৫), ডক্টর হু (১৯৬৩) ও জিন্নাহ (১৯৯৮) চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য বিশ্বব্যাপী ব্যাপক পরিচিত ছিলেন। তার মা ছিলেন খ্যাতিমান রাশিয়ান অভিনেত্রী ভেড়া আলেক্সান্দ্রভনা ট্রিসেঙ্কো, যিনি ১৯৮৩ সালে মৃত্যুবরণ করেন।

সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাত্মক লকডাউনের প্রথম দিনে বাস্তবায়নে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন রাজধানীতে প্রবেশ ও বের হওয়ার সব পথে পুলিশের কঠোর নজরদারি করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে ঘরে ঘরে সচেতনতার দুর্গ গড়ে তুলতে হবে:সেতুমন্ত্রী সোনারগাঁয়ে ট্রাক চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত ২ সাবেক আইনমন্ত্রী আবদুল মতিন খসরু না ফেরার দেশে » রাষ্ট্রপতিও প্রধানমন্ত্রীর শোক করোনা প্রতিরোধে কঠোরভাবে বিধি-নিষেধ প্রতিপালনে পুলিশের প্রতি নির্দেশ আইজিপি’র ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদে সীমিত পরিসরে প্রতীকী মঙ্গল শোভাযাত্রা আজ থেকে মহারাষ্ট্রে ‘জনতা কার্ফু’ করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে, সারাদেশে চলছে কঠোর লকডাউন সর্বাত্মক লকডাউন ব্যাংকে লেনদেন ১০টা থেকে ১টা