শুদ্ধি অভিযান শুরু কক্সবাজার বদলির ঢেউ এবার সিএমপিতে ?

পোস্ট করা হয়েছে 27/09/2020-12:37pm:    মেজর সিনহা হত্যার পর কক্সবাজার জেলায় পুলিশের প্রায় সব সদস্যকে বদলি করার পর বদলির ঢেউ পড়ছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশেও। কক্সবাজারে এসপি, ৮ থানার ওসি সব সাব ইন্সপেক্টর ও কনস্টেবলসহ পুরো ইউনিটকে সেখান থেকে সরিয়ে বিভিন্ন স্থানে বদলি করা হয়। সেই বদলির ঢেউ এসে এবার সিএমপিতেও আসছে বড় ধরনের রদবদল। সরাসরি পুলিশ সদর দপ্তরের আদেশে নিজস্ব তদন্তের পর বদলি।কয়েকদিনের মধ্যে সিএমপিতে ওসিসহ কনস্টেবল পর্যন্ত পদে ব্যাপক বদলি কথা রয়েছে৷ পুলিশ সদর দপ্তরের আদেশে সিএমপির ৬শ কনস্টেবল ও ৭৫ জন সাব ইন্সপেক্টরের বদলি হবে শিগগিরই। এদের সিএমপি নয় শুধু চট্টগ্রাম বিভাগে বা রেঞ্জেও পোস্টিং করা হবে না। এছাড়া ওসি থেকে ডিসি লেভেল পর্যন্ত অনন্ত ৩০ জনের নামও এই বদলি তালিকায় তা ছাড়া সিএমপির অনেক প্রভাবশালী ওসির নামও রয়েছে এই তালিকায় ৷ পুলিশ কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর সিএমপিতে যেসব বিতর্কিত কর্মকর্তা দীর্ঘদিন ধরে একই থানায়, ফাঁড়ি বা দপ্তরে কর্মরত আছেন তাদের তালিকা করেছেন। ইতিমধ্যে বিতর্কিত কর্মকর্তাদের সরিয়ে সৎ ও দক্ষ অফিসার পদায়ন শুরু হয়েছে। ফলে দীর্ঘদিন ধরে এক থানায়, ফাঁড়ি বা ইউনিটে কর্মরত বিতর্কিত অফিসারদের মধ্যে এখন চলছে ‘বদলি আতঙ্ক’। নতুন আইজিপি বেনজির আহমেদ পুলিশে যে সংস্কার শুরু করেছেন তার পালে হাওয়া লেগেছে অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে ঘটে যাওয়া সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনহা হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় প্রদীপ-লিয়াকতের ভূমিকা। এটাকে সামনে নিয়েই মূলত পুলিশে শুদ্ধি অভিযান শুরু হয়েছে। সিনহা হত্যাকাণ্ডের পর জনসাধরণের মনে পুলিশ নিয়ে যে ইমেজ সংকট সৃষ্টি হয়েছে, সেই সংকট থেকে উত্তরণ এবং দুর্নীতিগ্রস্ত অফিসারদের কড়া বার্তা দিতেই এই ‘শুদ্ধি অভিযান’ শুরু হয়েছে। এছাড়া দক্ষ ও যোগ্য অফিসারদের পদায়ন করে কাজে গতিশীলতা আনা ও এ কার্যক্রমের উল্লেখযোগ্য একটি উদ্দেশ্য।

সর্বশেষ সংবাদ