হুমায়ূন আহমেদের পছন্দের খেলা ক্রিকেট

পোস্ট করা হয়েছে 10/03/2015-11:34am:    আলোর কণ্ঠ ডেস্ক: বিশ্বকাপ এলেই পত্রিকাগুলো বিশেষ ক্রোড়পত্রের পাশাপাশি এ বিষয়ক বিভিন্ন নিবন্ধ প্রকাশ করে। অনেক সম্পাদক লেখকদের নাম টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই ঘোষণা দিয়ে পাঠকদের জানিয়ে দেন। এই তালিকায় শুধু যে সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞরাই থাকেন এমন নয়, অনেক সেলিব্রেটিও থাকেন। ক্রিকেট নিয়ে তার উত্তেজনাও কম ছিল না, বিশেষ করে বাংলাদেশের খেলা হলে। একবার ক্রিকেট নিয়ে হুমায়ূন আহমেদের প্রবল উৎসাহ দেখে এক সাংবাদিক তার ইন্টারভিউ নেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করলেন। অনুমতি মিলল। সাংবাদিক ক্রিকেট নিয়ে নানান প্রশ্ন করতে লাগলেন। কিন্তু হুমায়ূন আহমেদ এর কোনোটারই জবাব দিতে পারলেন না। ফলে এক পর্যায়ে সাংবাদিক হতাশ হয়ে বললেন, আপনি যে ক্রিকেট বুঝেন না, এটা কী লিখতে পারি? হুমায়ূন আহমেদ বললেন, অবশ্যই লিখতে পারো। কিছু না বুঝেও ক্রিকেট কেন পছন্দ করেন, একটু ব্যাখ্যা করবেন? সাংবাদিক বলল। হুমায়ূন আহমেদ বললেন, কারণ আমি গল্পকার। স্যার, একটু বুঝিয়ে বলুন। হুমায়ূন আহমেদ এবার গম্ভীর গলায় বলতে শুরু করলেন, ক্রিকেটে এক ওভারে ছয়টি বল করা হয়। বল করা মাত্র গল্প শুরু হয়। নানান সম্ভাবনার গল্প। ব্যাটসম্যানকে আউট করার সম্ভাবনা, ছক্কা মারার সম্ভাবনা, শূন্য পাওয়ার সম্ভাবনা। ছয়টা বল হলো ছয়টি সম্ভাবনা গল্পের সংকলন। এবার বুঝেছ? সাংবাদিক কী বুঝলো সেই জানে। কারণ সে আর হ্যাঁ-না কিছুই বলল না। হুমায়ূন আহমেদ বললেন, পৃথিবীতে কবিদের একটা বড় অংশ ক্রিকেট পছন্দ করেন। কারণ কবিদের কাজ হচ্ছে ছন্দ নিয়ে। ক্রিকেট ছন্দময় খেলা বলেই কবিদের পছন্দের খেলা। ক্রিকেট যে কবিরা পছন্দ করেন আগেই বলেছি। কেন পছন্দ করেন সেই ব্যাখ্যা হুমায়ূন আহমেদের কাছ থেকেই পাওয়া গেল। এবার ক্রিকেট নিয়ে হুমায়ূন আহমেদের একটা ঘটনা স্মরণ করে লেখাটি শেষ করছি। বাংলাদেশ-আয়ারল্যান্ড বিশ্বকাপের খেলা। আয়োজক বাংলাদেশ। খেলা ঢাকায় হচ্ছে। হুমায়ূন আহমেদ সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি মাঠে বসে এই খেলা উপভোগ করবেন। যথাসময়ে তিনি সস্ত্রীক স্টেডিয়াম এলাকায় এসে উপস্থিত হলেন। ভেতরে ঢোকার আগে দেখলেন, অনেকেই রং-তুলি নিয়ে ঘুরছে। হুমায়ূন আহমেদ স্ত্রীকে বললেন, আমার বাঘ সাজতে ইচ্ছে করছে। তোমার আপত্তি আছে? স্ত্রীর এতে আপত্তি থাকার কারণ ছিল না। ফলে সম্মতি পাওয়া গেল। কিন্তু তিনি বাঘ সাজার পরিকল্পনা বাতিল করে দিলেন। স্ত্রী এর কারণ জানতে চাইলে হুমায়ূন আহমেদ দীর্ঘশ্বাস ছেড়ে বললেন, বৃদ্ধ বাঘ সেজে মাঠে ঢোকার কোনো মানে হয় না। মাঠে ঢুকবে তরুণ বাঘ এবং বাঘিনীরা। হুমায়ূন আহমেদ স্ত্রীকে নিয়ে মাঠে প্রবেশ করলেন।

সর্বশেষ সংবাদ