কোথায় হারিয়ে গেল আদর্শ লিপির সেই আদর্শ কথা [ শাহেদা রশীদ পপি ]

পোস্ট করা হয়েছে 30/05/2014-12:24pm:    শিশুকালে মা-বাবা আমাদের হাতে তুলে দিতেন “আদর্শ লিপি” নামে একটি বই, যাতে লিখা থাকতো আদর্শ কথা। আমাদের হাতের লিখা সুন্দর করার জন্য লিখতে বলতেন, ‘সদা সত্য কথা বলিব’, ‘মিথ্যা বলা মহাপাপ’। ছড়া শিখানো হতো, ‘সকালে উঠিয়া আমি মনে মনে বলি, সারাদিন আমি যেন ভালো হয়ে চলি, আদেশ করেন যাহা মোর গুরু জনে, আমি যেনো সেই কাজ করি ভালো মনে।’ কবিতা শিখানো হত, ‘আমাদের দেশে হবে সেই ছেলে কবে, কথায় না বড় হয়ে কাজে বড় হবে, মুখে হাসি বুকে বল, তেজে ভরা মন, মানুষ হইতে হবে এই যার পণ’ অথবা ‘আমরা শক্তি আমরা বল আমরা ছাত্রদল। এই সকল শিক্ষা দিয়ে শিশুদের নৈতিকতা, আদর্শ চরিত্র গঠনের জন্য সুশিক্ষা দেয়া হত। এখন আধুনিক শিক্ষার যাতাকলে পড়ে হারিয়ে যাচ্ছে শিশু মনের সেই সুকুমার মনোভাব। কোমলমতি শিশুরা থাকে অনুকরণ প্রিয়। শিশুকালের শিখাটা তাদের স্মৃতির মানস পটে গেঁথে থাকে আজীবন। কালের প্রবর্তনের হাওয়ায় তাদের ভাসিয়ে দিয়ে সঠিক শিক্ষা ব্যবস’া থেকে দূরে ঠেলে দেয়া হচ্ছে। এখন আর শিশুরা ভোর দেখে না, নদীতে পাল তোলা নৌকা দেখে না, শিশির ভেজা দুর্বাঘাসে তাদের পা পড়ে না। এখন হাতে খড়ি দেয়ার সময় শিশুদের হাতে যে বই দেয়া হয় তাতে লিখা থাকে “হাট্টিমা টিম টিম, তারা মাঠে পাড়ে ডিম, তাদের খাড়া দুটি শিং, তারা হাট্টিমা টিম টিম’ অথবা ‘আগডুম বাগডুম ঘোড়ার ডুম সাজে’। এই ধরনের ছড়ায় শিক্ষনীয় কিছু আছে কি যা তাকে আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে দেবে? নব্বই দশকে আমাদের শিক্ষা ব্যবস’ায় হয়েছে সবচেয়ে মারাত্মক অবক্ষয়। নৈব্যক্তিক প্রথা চালু সরা বছর অধ্যয়ন না করেও সে নৈর্ব্যক্তিক প্রথার কবলে পড়ে নির্দ্বিধায় পাশ করে যাচ্ছে। অধ্যয়ন না করলে সে জানবে কি? বুঝবে কি? এ পদ্ধতিতে যারা ডিগ্রি নিয়ে বের হচ্ছে তারা কাজ করছে উচ্চ পদস’। যে দেশের শিক্ষার মূলনীতি পাইকারি হারে বাজারজাত করা হয়, সেই দেশ কীভাবে তার জাতিকে সুস’-সবল, প্রতিভাবান, মেধাবী ভবিষ্যৎ প্রজন্ম উপহার দেবে? আমাদের দেশের বর্তমান শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে বেড়ে চলেছে দুর্নীতি, ঘোলাটে রাজনীতির পরিবেশ, ক্যাম্পাসে অস্ত্রের ঝনঝনানি, সিট দখল, ভর্তি বাণিজ্য, টেন্ডারবাজি, বহিরাগত লোকদের মারফতে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ইয়াবা বিক্রয়ের হীন চেষ্টা, এসিড নিক্ষেপ সহ হরেক রকমের অশ্লীলতার ছড়াছড়ি। কাদের প্রেসক্রিপশনে চলছে আমাদের সোনার বাংলা? কাদের আঙুলের ইশারায় নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো? শিক্ষার্থী নামের তথাকথিত বখাটেদের কারা লালন করছে? ধন-ধান্যে পুষ্পে ভরা আমাদের এই বসুন্ধরা ধ্বংস করছে কারা? পরিশেষে পাঠক/পাঠিকা সহ সকলের প্রতি নিবেদন এই যে, প্লিজ একটি বারের জন্য স্মরণ করুন সেই শিশুকালের “আদর্শ লিপির” কথা। যার প্রতিটি লিখা হল আমাদের জন্য শ্রেষ্ঠ উপদেশ। অতএব; আসুন, সেই আদর্শ লিপির আদর্শ কথানুযায়ী নিজেদের জীবনকে সাজাই। লেখক : সংস্কৃতিকর্মী

সর্বশেষ সংবাদ
স্বাস্থ্যসেবা সংক্রান্ত যেকোনো অনিয়ম দুর্নীতি অনুসন্ধান করা হবে: দুদক চেয়ারম্যান কক্সবাজার রেড জোন,শনিবার থেকে আবারো লকডাউন এবার ঘরে বসে তৈরি করুন জিভে জল আনা কাঁচাআমের জুস সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের সফল অস্ত্রোপচার, দোয়া কামনা চট্টগ্রামের -১৬ বাঁশখালীর এমপিসহ পরিবারের ১১ সদস্য করোনা আক্রান্ত সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের শারীরিক অবস্থার অবনতি দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন ঊর্র্ধ্বগতিতে জনদুর্ভোগ এখন চরমে আজ বছরের দ্বিতীয় চন্দ্রগ্রহণ পরিবহন সেক্টরে চাঁদাবাজি বন্ধে কঠোর হওয়ার নি‌র্দেশ আইজিপি’র  তথ‌্যমন্ত্রী  ড. হাছান মাহমুদ এমপি র  শুভ জন্মদিনে শুভ কামনা।