ঘুমহারা রাত- রোকসানা বন্যা লেখিকা, সাহিত্যিক ও সংগঠক

পোস্ট করা হয়েছে 19/12/2018-10:49am:    কিছু একটা খুঁজছি। কিছুতেই পাচ্ছি না তা। নির্দিষ্ট করে বলতেও পারছিনা কি খুঁজছি। আলমারি খুলে অনেকক্ষণ তাকিয়ে আছি। পাচ্ছি না। এ ঘর ও ঘর হাঁটাহাঁটি করছি। আনমনে গুনগুনিয়ে রবীন্দ্রনাথকে স্মরণ করছি।এই একজন যিনি সুখে, দুখে বিপদে আপদে সবসময়ে আপনারই হয়েই থাকবে। সন্ধ্যায় যেন মনটা কেমন করে আছে। ভালো থাকার মন্ত্রগুলো যেন গুলিয়ে ফেলছি। শরীর যখন ভালো থাকে না মনের চাপ বেড়ে যায়। অথবা মনই যখন খারাপ থাকে শরীর নিতে পারে না। একটার সাথে আরেকটার বন্ধন খুবই শক্ত। মানুষের সাথে মানুষের বন্ধন কি এরকম? বিবেকানন্দ বলেছিলেন, জীবনের সেরা নির্দেশিকা শক্তি। এই ‘শক্তি’টাই মাঝেমাঝে খুব নড়বড়ে হয়ে যায়। রাতের চাঁদকে আমার বড্ড আপন মনে হয়। অনায়াসে আমি তার কাছে আমার মনের কথা বলতে পারি। আমার সাথে তার অদ্ভুত বন্ধুত্ব। প্রায় ঘুম না হওয়া রাতে তার কাছেই যাই। কত কিছুই তো হারালাম। আমি জানি, যা হারিয়েছি তা আর পাবো না। তোমাকে কি খুঁজি বাবা ঐ তারাদের ভিড়ে? কেমন আছো? অনেকদিন দেখছিনা। এমন কোন মুহূর্ত নেই বাবা, যা আমাকে বারবার মনে করিয়ে দেয় তোমার শেষ সময়ের কথা। দুর্বল কোন মুহূর্তে তোমার মুখটাই ভেসে আসে। খুব কষ্ট । শেষ রাতের চাঁদ আকাশে ভেসে বেড়াচ্ছে আপন মনে। আমার সমস্ত কথা সে বুঝতে পেরেছে। দূরে আজানের মোলায়েম সূর ভেসে আসছে। কয়েকটা পাখি সুর তুলেছে। চেনাজানা ওদের কথাও মনে পড়ছে। ধীরে ধীরে আজানের সুর কমে আসছে। চোখে ঘুম নামছে। ভালো থেকো।

সর্বশেষ সংবাদ