‘প্রতিবেশিকে জানুন’ সম্মলনে একে-অপরকে জানার ক্ষেত্রে বাধা ও প্রতিবন্ধকতা দূর করার আহ্বান

পোস্ট করা হয়েছে 23/02/2016-08:19am:    মোঃ রায়হান চৌধুরী, জাবি প্রতিনিধি: জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ও গণবিশ্ববিদ্যালয়ের যৌথ উদ্যাগে শুরু হয়েছে ‘প্রতিবেশিকে জানুন’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলন। মহান একুশে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে গণবিশ্ববিদ্যালয়ে সোমবার সকাল ১০টায় শুরু হওয়া সম্মেলনটির উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. :ফারজানা ইসলাম। এতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এ্যামেরিটাস অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী তাঁর মূল প্রবন্ধে একে-অপরকে জানার ক্ষেত্রে সকল ধরণের বাধা ও প্রতিবন্ধকতা দূর করার আহ্বান জানান। উদ্বাধনী ভাষণে উপাচার্য ড. ফারজানা ইসলাম বলেন, "ভাষা স্বাধীন সত্ত্বা ও জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠার অনুরণ ঘটায়। ৫২’র ভাষা আন্দোলন আমাদের আলাদা জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠার ভীত গড়ে দিয়েছে। বাংলাদেশের চারপাশ ঘিরে বৃহৎ ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, আসাম, ত্রিপুরা, মেঘালয়, মনিপুর, উড়িশা প্রভৃতি প্রতিবেশি অঙ্গরাজ্যগুলোর সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক হাজারো বছরের। অথচ আমরা একে অপরের শিল্প, সংস্কৃতি, ইতিহাস, ঐতিহ্য, ধর্ম, দর্শন সম্পর্কে বিশেষ অবহিত নই।" উপাচার্য ড. ফারজানা ইসলাম আরো বলেন, "একে অপরকে জানার কোন সীমা-পরিসীমা নেই এবং জানা একটি চলমান প্রক্রিয়া। বাংলাদেশ ও ভারতের অনেক রাজ্যের অধিবাসীদের মধ্যে ভাষা, বোধ, অনুভূতি, আচার-আচরণ ও সংস্কৃতিতে যে সাদৃশ্য রয়েছে, এবং এ সম্মেলনের মধ্য দিয়ে তা জানার যে যোগসূত্র স্থাপিত হলো, ভবিষ্যতে তা অব্যাহত থাকবে।" গণবিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মেসবাহ উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন সম্মেলনের জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়র আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. এটিএম আতিকুর রহমান ও সম্মেলনের গণবিশ্ববিদ্যালয়ের আহ্বায়ক অধ্যাপক মনসুর মুসা। ২৩ ফেব্রুয়ারি সকাল ৯টায় সম্মেলনের চলা দ্বিতীয় দিনের অনুষ্ঠানটি শুরু হবে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের জহির রায়হান মিলনায়তনে।

সর্বশেষ সংবাদ